স্মার্ট ডিজিটাল লক

আমরা সাধারনত স্মার্ট ডিজিটাল লক ব্যবহার বাসা বাড়ি, অফিস, ফ্যাক্টরী, ব্যংকে অথবা গুরুত্বপুর্ন স্থাপনায়। ডোর লক ব্যবহারের অন্যতম সুবিধা হল এটি আপনার স্থাপনার নিরাপত্তা প্রদান করে সঠিক ভাবে এছাড়াও কে প্রবেশাধিকার নিয়ন্ত্রনে গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা রাখে। ডোর লক শুধু মাত্র একটা ডিভাইসের মধ্যেই সিমাবদ্ধ নয়। এটি অনেকগুলো অংশ নিয়ে কাজ করে। যেমন EM Lock (Electromagnetic Lock), Exit Button বা Push Button, আর সমস্ত অংশের সমন্বয়ে ডোর লক কাজ করে।

এছাড়াও রেডিমেট অনেক ধরনের Smart Digital Door Lock বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যায়। যে গুলো খুব সহজে দরজার সাথে ইনস্টল করা যায়।  এই ধরনের লক গুলো সাধারনত ব্যটারী দিয়ে ব্যবহার করতে হয়। এই ধররনের Smart Digital Door Lock এ অনেক ধরনের সুবিধা থাকে যেমন ফিংগার প্রিন্ট, কার্ড, পাসওয়ার্ড, ফেস ও চাইলে চাবি দিয়েও খোলা যায়।

কি ভাবে Low Budget Door Lock বানাবো?

আর যদি কম খরচের Customized Low Budget Door Lock দরকার হয় সে ক্ষেত্রে আমাদের পরামর্শ হল বাজারে বিভিন্ন ধরনের Access Control Device পাওয়া যায় Off line Access Control এবং Online Access Control। এই গুলোর মধ্যে আপনি আপনার বাজেটের মধ্যে যে কোন একটা মডেল ক্রয় করে এর সাথে প্রয়োজনীয় Door lock Accessories সংযুক্ত করে আপনি যে রকম চাচ্ছেন সেই রকম ডোর লক ফিটিংস করতে পারবেন।    

তবে এই ক্ষেত্রে যে বিষয় টা মনে রাখবেন তা হল আপনি ডোর লক কোথায় ব্যবহার করবেন। যদি কোন রুমের মধ্যে ব্যবহার করেন সেই ক্ষেত্রে Indoor Type Door Lock ব্যবহার করতে পারেন। আর যদি বাহিরে ব্যবহার করতে চাই সে ক্ষেত্রে Outdoor Type Door Lock ব্যবহার করতে পারেন।

Door Lock ও Access Control এর পার্থক্য

এখন আমরা জানব Door Lock ও Access Control এর পার্থক্য।

Door Lock
Access Control

Door Lock দিয়ে আপনি যে কোন দরজায় অথবা যে কোন স্থাপনায় শুধু মাত্র প্রবেশাধিকার নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন। এটি মুলত দুই ধরনের হয় থাকে যেমন Electronics Door Lock ও Electromechanical Door Lock। এছাড়াও আরো অনেক ধরনের হয়ে থাকে আমরা ভবিষৎ এই নিয়ো আরো আলোচনা করব।

Access Control এমন একটি সিস্টেম যা দিয়ে আপনি একই সাথে ডোর লক ও Attendance System Management করতে পারবেন। আপনি না চাইলে ডোর লক ব্যবহার নাও করতে পারেন। এক্সেস কন্ট্রোল দিয়ে একটা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীর হাজিরা, অফিসে দেরিতে আসা, অফিসে আগে চলে যাওয়া, কে কত ঘন্টা ডিউটি করছে সব কিছু জানতে পারবেন। বর্তমানে অনেক ধরনের Access Control পাওয়া যায় বাজারে এই গুলোর ইন বিল্ট সফট দিয়ে আরো অনেক সুবিধা নেওয়া যায়। চাইলে আরো কাষ্টমাইজড সফট ব্যবহার করে প্রয়োজনমত অনেক সুবিধা নিতে পারেন।    

ডোর লক নিয়ে আরো বিস্তারিত জানতে হলে দেখুন উইকি-পিডিয়া